প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ ক্ষমতার অপব্যবহার ও দূর্ণীতির মাধ্যমে আইনজীবী ও মানবাধিকারকর্মীকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগে নওগাঁর বদলগাছি থানার এসআই জোবায়ের হোসেনের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু!
জাস্টিসমেকার্স বাংলাদেশ, লয়ার্স ফর লয়ার্স বাংলাদেশ, বিআইএইচআর এবং বৈচিত্র্য.বাংলা

২৭ মে ২০১৮



পরষ্পর যোগসাজসে দূর্নীতিও ক্ষমতার অপব্যবহার করে মানবাধিকারকর্মী ও আইনজীবীকে মিথ্যা মামলায় জড়িত করার অভিযোগে নওগাঁ জেলার বদলগাছী থানার সাব ইন্সপেক্টর এসএম জোবায়ের হোসেনের বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্ত শুরু হয়েছে। আজ ২৭ মে ২০১৮ ইং তারিখে নওগাঁ জেলার সহকারী পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোঃ মতিয়ার রহমান অভিযোগকারী অ্যাডভোকেট শাহানূর ইসলাম সৈকত এবং অভিযুক্ত এস আই এস এম জোবায়ের হোসেনের ও এ এস আই মোঃ মাহাবুর রহমানের বক্তব্য গ্রহণের মাধ্যমে তদন্ত কার্যক্রম শুরু করেন।

ঘটনায় প্রকাশ, মানবাধিকার প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব হিউম্যান রাইটস (বিআইএইচআর), জাস্টিসমেকার্স বাংলাদেশ ও লইয়ার্স ফর লইয়ার্স এর সেক্রেটারী জেনারেল এবং জেলা বার এ্যাসোসিয়েশন নওগাঁ ও ঢাকা’র সম্মানিত সদস্য অ্যাডভোকেট শাহানূর ইসলাম সৈকত ইন্টারন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অফ হিম্যানিটারিয়ান ল’, ইতালী কর্তৃক আয়োজিত আন্তুর্জাতিক শরনার্থী বিষয়ক একটি আন্তুর্জাতিক প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ শেষে ঢাকা ফিরার পথে গত ২১শে ডিসেম্বর ২০১৭ ইং তারিখে এমিরাটস এয়ারলাইন্সে অবস্থানকালীন সময়ে নওগাঁ জেলা পরিষদ সদস্য মোঃ জহুরুল ইসলাম ষড়যন্ত্রমূলকভাবে শাহানূর ইসলামের বিরুদ্ধে মোঃ জহুরুল ইসলামকে প্রকাশ্যে খুন যখমের হুমকি প্রদান করেছে মর্মে একটি মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করে।

অতঃপর, বদলগাছি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অভিযোগটি জিডি হিসেবে নথিভুক্ত করে উক্ত থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক এস এম জোবায়ের হোসেনকে তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ প্রদান করে। তৎপর, গত ২ জানুয়ারী ২০১৮ ইং তারিখে তদন্তকারী কর্মকর্তা জিডিটি তদন্তের অনুমতির জন্য সংশ্লিষ্ট আদালতে আবেদন করে এবং তদন্তের অনুমতি প্রাপ্ত হয়ে অভিযোগকারীর সাথে পরস্পর যোগসাজসে ক্ষমতার অপব্যবহার ও দূর্নীতি করে কোন প্রকার তদন্ত না করে উপরোক্ত অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে মর্মে দন্ডবিধির ৪২৭ ও ৫০৬ ধারায় শাহানূর ইসলামের বিরুদ্ধে গত ২৯ জানুয়ারী ২০১৮ ইং তারিখে বদলগাছি থানার ননএফআইআর প্রসিকিউশন নং ০১ নথিভুক্ত করে এবং সংশ্লিষ্ট আদালতে প্রেরণ করে।

পরবর্তীতে, ৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ইং তারিখে বিজ্ঞ আদালত ননএফআইআর প্রসিকিউশন রিপোর্টটি আমলে গ্রহন করে শাহানূর ইসলামের বিরুদ্ধে গত ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ইং তারিখে সংশ্লিষ্ট আদালতে উপস্থিত হওয়ার জন্য সমন ইস্যু করে এবং বদলগাছি থানা কর্তৃপক্ষকে উক্ত সমন যথাযথভাবে জারী করার আদেশ প্রদান করে।

পরবর্তীতে,বদলগাছি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উক্ত থানার সহাকারী উপ-পুলিশ পরিদর্শক মোঃ মাহবুবুর রহমানকে সমন জারীর দায়িত্ত্ব প্রদান করলে তিনি অভিযোগকারী ও তদন্তকারী কর্মকর্তার সাথে পরস্পর যোগ সাজসে ক্ষমতার অপব্যবহার ও দূর্ণীতির মাধ্যমে গত ১২ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ইং তারিখে স্বাক্ষর জাল করে মিথ্যাভাবে শাহানূর ইসলামের নামে সমন জারী দেখিয়ে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করে।

উল্লেখিত জাল স্বাক্ষরযুক্ত সমন জারী দেখানোর ফলে বিজ্ঞ আদালত গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ ইং তারিখে শাহানূর ইসলামের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারী করে। পরবর্তীতে, শাহানূর ইসলাম এস আই জোবায়ের হোসেন কর্তৃক পরষ্পর যোগসাজসে ক্ষমতার অপব্যবহার ও দূর্নীতির মাধ্যমে শাহানূর ইসলামের বিরুদ্ধে মিথ্যা তদন্ত প্রতিবেদন প্রদান এবং এ এস আই মাহবুব কর্তৃক জাল স্বাক্ষর প্রদানের মাধ্যমে সমন জারী দেখিয়ে সংশ্লিষ্ট আদালতে প্রতিবেদন প্রেরণের বিষয়ে যথাযথ তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পুলিশ মহাপরিদর্শক বরাবর আবেদন করলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বিভাগীয় তদন্তের আদেশ প্রদান করেন।

বিজ্ঞপ্তিটি অনলাইনে দেখতে ভিজিট করুনঃ
https://shahanur.blogspot.com/2018/05/blog-post_27.html




-----------------------------------------------------
তালিকায় ফিরে যান
মূল পাতা
আমাদের সম্বন্ধে
সম্পাদকের বক্তব্য
তথ্য ভান্ডার
সৃজনশীলতা
সংবাদ
স্মৃতি চারণ
প্রেসবিজ্ঞপ্তি
জরুরী আবেদন
নিবন্ধ
দন্ডবিধি