অভিজিৎ রায় - আমরা চির কৃতজ্ঞ
রিয়াজ ওসমানী



২০১৫ সালের ২৬ শে ফেব্রুয়ারী সন্ধ্যায় কিছু ইসলামী জঙ্গিদের হাতে একজন বাংলাদেশী-আমেরিকান লেখক, ব্লগার, মুক্তমনা এবং নাস্তিক যার নাম অভিজিৎ রায়, তিনি ঢাকার বার্ষিক বই মেলার প্রাঙ্গণে নির্মমভাবে হত্যার শিকার হন। তিনি এবং তার স্ত্রী যুক্তরাষ্ট্র থেকে ঢাকায় এসেছিলেন তাঁর লেখা কিছু নতুন বই উদ্বোধন করতে। তিনি তার সমস্ত বই সহ আমাদের জন্য রেখে গিয়েছেন মুক্তমনা নামক একটি দোভাষী ব্লগ যেটাতে মুক্ত চিন্তাধারার সবাইকে লেখা জমা দেয়ার আমন্ত্রন জানানও হয়। তিনি নিজে সমকামী হয়ে জন্মগ্রহন না করেও যৌন সংখ্যালঘুদের জন্য রেখে গেছেন এক অপরিহার্য উপহার যার নাম সমকামিতা - বাংলা ভাষায় সমকামিতাকে নিয়ে একটি প্রথম বৈজ্ঞানিক বই। নানান দৃষ্টিকোণ থেকে আমাদের যৌন প্রবৃত্তি নিয়ে বিশ্লেষণ করে গেছেন সমাজের চোখে আঙ্গুল দিয়ে।

আমরা তাঁর কাছে চির কৃতজ্ঞ। বাংলাদেশের যৌন সংখ্যালঘুদের কাছে তাঁর নাম হয়ে থাকবে চির অমর। আমরা সেই জঘন্য হত্যাকান্ডের ভাষা কোনও দিন খুঁজে পাবও কিনা জানি না। ঘটনাটা আমাদের মানসিক বিকাশের প্রতি, ধার্মিক কুসংস্কার থেকে বেড়িয়ে আসার প্রতি, বাক স্বাধীনতার প্রতি এবং বাংলাদেশের (তথাকথিত) ধর্মনিরপেক্ষতার উপর ছিল চরম আক্রমণ। সমাজের প্রতিটি স্তরে যেখানে সমকামীদের জন্য রয়েছে বৈষম্য, ঘৃণা আর অজ্ঞতা, সেখানে তিনিই আশার আলো দেখিয়ে দিয়েছিলেন তাঁর লেখনীর মাধ্যমে। আমরা তাঁর এই অবদান কোনও দিনও ভুলতে পারবো না। অভিজিৎ দা, আপনি আজ যেখানেই থাকুন - ভাল থাকুন, শান্তিতে থাকুন। আমরা প্রতিটা ২৬শে ফেব্রুয়ারীতে আপনার নাম স্মরণ করবো আর বাংলাদেশে যৌন সংখ্যালঘুদের অধিকার আদায় করার জন্য নতুন ভাবে ব্রত নিব।





-----------------------------------------------------
তালিকায় ফিরে যান
মূল পাতা
আমাদের সম্বন্ধে
সম্পাদকের বক্তব্য
তথ্য ভান্ডার
সৃজনশীলতা
সংবাদ
স্মৃতি চারণ
প্রেসবিজ্ঞপ্তি
জরুরী আবেদন
নিবন্ধ
দন্ডবিধি