ইসলাম নয় সমকামীরা লূত (আঃ) ও সংখ্যাগরিষ্ঠদের রাজনীতির শিকার
জুলহাজের কবি

১৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৮

ইসলাম ধর্ম কখনও কোন মানুষের বা সম্প্রদায়ের অধিকার খর্ব করেনি। যত ভন্ডামীর শিকার হয় সংখ্যালঘুগন সংখ্যাগরিষ্ঠদের দ্বারা। তেমনি ইসলামের নামে এখনও এমন একটি সংখ্যালঘু সম্প্রদায়কে দমিয়ে রাখা হচ্ছে। তারা হলো সমকামী সম্প্রদায়। ইসলাম নয় সংখ্যাগরিষ্ঠ সম্প্রদায়ের অপরাধ লুকাতে চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে সংখ্যালঘু সমকামীদের উপর অভিশপ্ততার অপবাদ। নানান ভাবে যুগে যুগে সমকামী সম্প্রদায়কে ঠকিয়ে আসছে সংখ্যাগরিষ্ঠ আর ধর্ম ব্যাবসায়ীরা। কথায় কথায় লূত সম্প্রদায়ের উদাহরন দিয়ে দমিয়ে রাখছে আমাদের।

তারা বলার আগে বিবেচনা করে না কি, কি বলছে? তাই আজ লূত সম্প্রদায়ের কথা বলছি। সমকামীদের দায়ী করলেও সমকামীরা মোটেও দায়ী নয় লূত সম্প্রদায় ধ্বংসে। নবী ইব্রাহীম (আঃ) এর ভাতিজা আল হারুনের পুত্র লূত (আঃ)। লূত (আঃ) শুধু একজন নবী ছিলেন না, তৎসঙ্গে ছিলেন একজন রাসূল। লূত সম্প্রদায়ের ধ্বংসের সাথে যারা পতীত হয় সেই দলে ছিলেন নবীর স্ত্রীও। নবী লূতের স্ত্রী ধ্বংস হয়েছিলো তার প্রমাণস্বরূপ পবিত্র কোরআন শরীফের কিছু সূরার আয়াত নিম্নরূপ:

★ ১. (নবী ইব্রাহীম (আঃ) উদ্দেশ্যে ফেরেস্তাগন) সেখানে যে লূত আছে আমরা তা ভালো করে জানি। আমরা তাকে ও তার পরিবারকে অবশ্যই রক্ষা করবো, তবে তার স্ত্রী ব্যতীত। কারন সে ধ্বংস প্রাপ্তদের অন্তর্ভুক্ত হবে। (সূরা আনকাবূত : ২৯/৩১-৩২)।

★ ২. (ফেরেস্তাগন লূত (আঃ) এর উদ্দেশ্যে বলিলেন) কেউ পিছন ফিরে তাকাবেন না। শুধু আপনার বৃদ্ধা স্ত্রী ব্যতীত। নিশ্চয়ই তার উপর গজব অর্পিত হবে, যা ওদের উপর হবে। ভোর পর্যন্ত ওদের সময়। ভোর কি খুব নিকটে না? (সূরা হৃুদ: ১১/৮১ ও সূরা শো'আরা : ২৬/১৭১)।

নবী লূতের স্ত্রী কি সমকামী ছিলেন? নবী লূত তো পায়ূসঙ্গম বিরোধী ছিলেন তাহলে কি নবী লূতের স্ত্রী গোপনে পায়ুসঙ্গম করতেন? সূরা হৃুদ ও শো'আরায়, যাকে বৃদ্ধা স্ত্রী বলা হয়েছে তিনি কেন ধ্বংস হলেন? লূতের স্ত্রীর সন্তান ছিলো না এটা কি তার অপরাধ? পবিত্র কোরআন ও হাদিস শরীফ বলা আছে - অপরাধ হল সে ইমান আনেনি আর লূতের স্ত্রী নবীর সব খবরাখবর প্রতিবেশীদের নিকট বলে দিতেন। সমকামিতা যদি সবচেয়ে বড় অপরাধ হত তাহলে কেন লূত পত্নী ধ্বংস হলেন?

তাহলে কি শুধু সমকামীদের জন্য ধ্বংস হয়েছে লূত সম্প্রদায়? লূত সম্প্রদায় এর থেকেও অজাচারি ছিল। বর্ণনা মতে তারা নিজের স্ত্রী সহ আপন ওয়ারেশজাত কন্যার সাথেও সহবাস করতো। বান্দী, বাইজি, মদ, জুয়া, সদ্যজাতশিশু হত্যা, সুদ সহ ব্যভিচারী ছিল। সংখ্যাগরিষ্ঠদের অপরাধ ও নবী লূতের ব্যর্থতা লুকাতে এ কাহিনী সাজানো আর জোর করে সমকামীদের উপর চাপিয়ে দেয়া মাত্র!! গোড়ায় গলদ মেটাতে এত বড় মিথ্যাচার করেছে কারন নবী লূতের ঘরই ঠিক ছিল না। তার নিজ স্ত্রীই ছিল তার বিরোধী। লূতকে বিশ্বাস করতো না। তাই ঘর ঠিক করতে রাজনীতি করা হয়েছে সমকামীদের সাথে।

বিঃদ্রঃ সমকামীরা কখনো কোন সম্প্রদায়ের ধ্বংসের কারন না।

-----------------------------------------

সম্পাদকের মন্তব্যঃ

বৈচিত্র্য বিশ্বাস করে যে ইসলাম ও অন্যান্য ধর্মগুলোতে সমকামীদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনুশাসনের চুলচেড়া বিশ্লেষন প্রয়োজন। এবং এর জন্য বয়োজৈষ্ঠ আলেমদের কথার উপর ভিত্তি করেই বসে থাকলে চলবে না। লেখাপড়া করে কোরআন ও হাদিসের ব্যাখ্যা খুঁজে বের করার অধিকার যে কোন মানুষের আছে। সবার এখানে একমত হতে হবে এমন কোন কথা নেই। কিন্তু প্রচলিত ব্যাখ্যাই যে সংবিধান হবে এমনটি ভাবা মধ্যযুগীও চেতনার সামিল। এবং ভিন্ন ভাষ্য প্রদান করায় কারও ধর্মিও অনুভূতিতে আঘাত লাগলে সেটা হবে যিনি আঘাত পেয়েছেন তারই মানসিক অপরিপক্কতা।





-----------------------------------------------------
তালিকায় ফিরে যান
মূল পাতা
আমাদের সম্বন্ধে
সম্পাদকের বক্তব্য
তথ্য ভান্ডার
সৃজনশীলতা
সংবাদ
স্মৃতি চারণ
প্রেসবিজ্ঞপ্তি
জরুরী আবেদন
নিবন্ধ
দন্ডবিধি